কোনো বাধাই দেশের অগ্রযাত্রা রুখতে পারবে না: প্রধানমন্ত্রী

pm.jpg

খবর বিজ্ঞপ্তি, ডেইলি সুন্দরবনঃ রোববার সকালে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণের স্বীকৃতি উদ্‌যাপন অনুষ্ঠানে গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি যোগ দিয়ে বক্তব্যের শুরুতেই প্রধানমন্ত্রী দেশবাসীকে খ্রিষ্টীয় নতুন বছরের শুভেচ্ছা জানান । তুলে ধরেন গত ১৩ বছরে বাংলাদেশের উন্নয়নের চিত্র। বলেন, ১৩ বছরে বাংলাদেশ অভূতপূর্ব উন্নয়ন করেছে এবং এ সময়ে দেশের অর্থনীতির আকার এবং মাথাপিছু আয় প্রায় তিনগুণ বেড়েছে।

সুষ্ঠু পরিকল্পনা নিয়ে যথাযথভাবে তা বাস্তবায়ন করার কারণেই স্বল্পোন্নত থেকে উন্নয়নশীল দেশের কাতারে পৌঁছেছে বাংলাদেশ। এ অর্জন ধরে রেখে ২০৪১ সালে উন্নত ও সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়তে পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

অর্থনীতিকে আরও গতিশীল করে, ২০৩১ সালের মধ্যে উচ্চ-মধ্যম আয়ের এবং ২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে উন্নত বিশ্বের কাতারে পৌঁছানোর পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে বলেও জানান শেখ হাসিনা।

শেখ হাসিনা বলেন, দীর্ঘ সময় ক্ষমতায় থাকায় দেশের উন্নয়ন দৃশ্যমান হয়েছে এবং সুফল পেতে শুরু করেছে দেশের মানুষ।

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, দেশের মানুষের ভাগ্যোন্নয়নই তাঁর সরকারের প্রধান লক্ষ্য। এবং সবাইকে নিয়ে এগিয়ে যাওয়াই বিবেচ্য বিষয় বলে মনে করেন তিনি।

বাংলাদেশ এখন বিশ্বে উন্নয়নের রোল মডেল জানিয়ে, আস্থা রাখায় এবং পাশে থাকায় উন্নয়ন সহযোগীদের বিশেষভাবে ধন্যবাদ জানান প্রধানমন্ত্রী।

অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী, অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল, মন্ত্রিসভার অন্যান্য সদস্য, বাংলাদেশের উন্নয়ন সহযোগী সংস্থাগুলোর প্রতিনিধিসহ রাজনীতিকেরা অংশ নেন।

অনেক হিসাব-নিকাশই পাল্টে দিয়েছে করোনা। কিন্তু অতিমারির আঘাত সত্ত্বেও স্থবির হয়নি দেশের অগ্রযাত্রা। বরং গত ২৪ নভেম্বর জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদ বাংলাদেশকে স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উত্তরণের চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

scroll to top