খুলনায় কেক কেটে ছাত্রলীগের ৭৪তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন

khulna.jpg

নিজস্ব প্রতিবেদক, ডেইলি সুন্দরবনঃ বাংলাদেশ ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে খুলনা মহানগর ছাত্রলীগের আলোচনা সভা, বর্ণাঢ্য আনন্দ মিছিল ও কেককাটা অনুষ্ঠানে খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সিটি মেয়র আলহাজ্ব তালুকদার আব্দুল খালেক বলেন, ‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান পাকিস্তানী শাষকগোষ্টীর হাত থেকে বাঙালী জাতিকে মুক্ত করতে এবং একটি স্বাধীন সার্বভৌম রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার তাগিদে আন্দোলন সংগ্রামকে বেগবান করার লক্ষ্যে ১৯৪৮ সালে একদল ত্যাগী ও মেধাবী ছাত্রদের নিয়ে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ প্রতিষ্ঠা করেন। ৪৮ এর প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে আজ অবধি যে সকল গণতান্ত্রিক আন্দোলন সংগ্রাম সংঘটিত হয়েছে তার মধ্যে অন্যতম ৫২ ভাষা আন্দোলন, ৫৪ যুক্তফ্রন্ট আন্দোলন, ৬২ শিক্ষা আন্দোলন, ৬৬ ছয় দফা, ৬৯ গণঅভ্যুথান, ৭০ এর নির্বাচন এবং ৭১ এর মহান মুক্তিযুদ্ধ সহ সকল আন্দোলন সংগ্রামে সর্বাত্মক ভুমিকা পালন করে এসেছে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ। বাংলাদেশ ছাত্রলীগ আজ ৭৫ বছরে পদার্পণ করেছে শুধুমাত্র নামে নয় বহু ত্যাগ তিতিক্ষা ও রক্ত বিসর্জনের মধ্য দিয়ে, তাই বাংলাদেশের ইতিহাসে ছাত্রলীগের নাম স্বর্ণা অক্ষরে লেখা থাকবে।’

মঙ্গলবার বিকাল সাড়ে ৪ ঘটিকায় নগরীর শঙ্খমার্কেটস্থ দলীয় কার্যালয় সামনে এ আলোচনা সভা, বর্ণাঢ্য আনন্দ মিছিল ও কেককাটা অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

সিটি মেয়র আরও বলেন, জাতির পিতার নিজ হাতে গড়া তার আদরের সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ তাঁর আদর্শ কে ধারন ও লালন করে এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার হাতকে শাক্তিশালী করতে তাঁর ভিশন ও মিশন বাস্তবায়ন করতে ভ্যানগার্ড হিসেবে ছাত্রলীগকে কাজ করতে হবে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন খুলনা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ হারুনুর রশিদ, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এমডিএ বাবুল রানা, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. সুজিত অধিকারী।

এছাড়াও আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগ নেতা নুর ইসলাম বন্দ, অধ্যক্ষ শহিদুল হক মিন্টু, শেখ মো: ফারুক আহমেদ, শেখ ফারুক হাসান হিটলু, অসিত বরণ বিশ্বাস, তসলিম আহমেদ আশা, সফিকুর রহমান পলাশ, মীর বরকত আলী, এম.এ নাসিম, দেব দুলাল বাড়ই বাপ্পী।

খুলনা মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি শেখ শাহাজালাল হোসেন সুজনের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান রাসেলের পরিচালনায় আরও উপস্থিত ছিলেন খুলনা জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি পারভেজ হাওলাদার, সাধারণ সম্পাদক ইমরান হোসেন ইমু, খুলনা মহানগর ছাত্রলীগ নেতা সোহেল বিশ্বাস, তাজমুল হক তাজু, আসাদুজ্জামান বাবু, মাসুদ হোসেন সোহান, রণবীর বাড়ই সজল, এখতিয়ার মোল্লা, উজ্জল দাশ, শেখ মোহাম্মদ, জব্বার আলী হীরা, জহির আব্বাস, ঝলক বিশ্বাস, মিনহাজ সুজন, জুবী ওয়ালীয়া টুই, ইয়াসিন আলী, রুবায়েত ইসলাম জুয়েল, শফিকুল ইসলাম মুন্না, রেজওয়ান খান রিজু, রাকিব মোড়ল, জনি বসু, রাশেদুল ইসলাম, মামুন হোসেন, নিশাত ফেরদৌস অনি, রুমান আহমেদ, আতিকুর রহমান সোহাগ।

আলোচনা সভা শেষে বেলুন ও কবুতর উড়িয়ে এবং ৭৪ পাউন্ডের কেককেটে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর উদ্বোধন করেন অতিথিবৃন্দ। এরপর বর্ণাঢ্য আনন্দ মিছিল হাদিস পার্ক চত্ত্বর থেকে শুরু হয়ে নগরীর পিকচার প্যাসেল মোড়, ডাকবাংলা মোড়, ফেরীঘাট মোড় হয়ে আবার ডাকাবাংলা মোড় পিকাচার প্যালেস মোড় হয়ে দলীয় কার্যালয় চত্ত্বরে এসে শেষ হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

scroll to top