শর্ষের মধ্যে ভূত আছে কি না, দেখতে হবে: কাদের

Padma-Bridge-.jpg

ডেইল‌ি সুন্দরবন প্রতি‌বেদকঃ আজ শুক্রবার সকালে পদ্মা সেতুর ১০ নম্বর পিলারে কে টাইপ ফেরি কাকলি ধাক্কা খায়। বিকেলে সেতুমন্ত্রী ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

 

সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘পদ্মা সেতু প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাহস ও সক্ষমতার সোনালি ফসল। এই সেতু নিয়ে অনেক ষড়যন্ত্র হয়েছে। এখনো পদ্মা সেতুর পেছনে দেশে-বিদেশে লোক লেগে আছে। শর্ষের মধ্যে ভূত আছে কি না, সেটা আমাদের খুঁজে বের করতে হবে।’

 

 

 

ওবায়দুল কাদের বলেন, পদ্মা সেতুর পিলারে পরপর চারবার ফেরির ধাক্কার ঘটনায় কোনো ষড়যন্ত্র আছে কি না, কোনো অন্তর্ঘাত আছে কি না, তা তদন্ত করে দেখতে হবে। কেন পুনরাবৃত্তি ঘটছে। সারা দেশের মানুষের অনুভূতিতে আঘাত হানছে। পদ্মা সেতুর সঙ্গে গোটা জাতির সম্পর্ক।

 

 

সেতু আগামী বছর উদ্বোধন করা হবে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, ‘আগামী বছরের জুনের মধ্যে পদ্মা সেতু যান চলাচলের জন্য খুলে দেওয়ার জন্য আমরা কাজ করছি। করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে ঘোষিত বিধিনিষেধের কারণে অনেক জায়গার অনেক কাজ বন্ধ হয়ে গেছে। পদ্মা সেতু নির্মাণে ২৪ ঘণ্টাই আমাদের লোকজন কাজ করছে।’

 

 

সেতুর নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা সেনাবাহিনীর সদস্যদের উদ্দেশে ওবায়দুল কাদের বলেন, বিষয়টি গভীরভাবে তদারক করা দরকার। বিষয়টি নিয়ে সেনাপ্রধান, জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থার (এনএসআই) প্রধান ও ডিরেক্টরেট জেনারেল অব ফোর্সেস ইন্টেলিজেন্সের (ডিজিএফআই) প্রধানের সঙ্গে কথা বলবেন বলে জানান তিনি।

 

 

বিআইডব্লিউটিসি সূত্র জানায়, ২০ জুলাই প্রথম পদ্মা সেতুর ১৬ নম্বর পিলারের সঙ্গে ধাক্কা লেগে রো রো ফেরি শাহ মখদুমের তলা ছিদ্র হয়ে যায়। ২৩ জুলাই মাদারীপুরের বাংলাবাজার ঘাট থেকে ছেড়ে আসা রো রো ফেরি শাহজালাল ১৭ নম্বর পিলারে ধাক্কা দিলে তা ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এরপর গত সোমবার সন্ধ্যায় রো রো ফেরি বীরশ্রেষ্ঠ জাহাঙ্গীর ১০ নম্বর পিলারে সজোর ধাক্কা খায়। এসব ঘটনায় সেতুর পিলারের পানি লাগোয়া অংশে (পাইল ক্যাপ) পলেস্তারা উঠে গর্তের সৃষ্টি করেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

scroll to top