নানান কর্মসূচির মধ্যে দিয়ে খুলনায় শেখ রাসেল দিবস পালিত

download-46.jpg

ডেস্ক নিউজ, ডেইলি সুন্দরবন: আজ সোমবার (১৮ অক্টোবর) প্রথমবারের মতো  জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ঠ পুত্র শেখ রাসেলের ৫৭তম জন্মবার্ষিকীতে শেখ রাসেল দিবস উদযাপিত হয়

‘শেখ রাসেল দীপ্ত জয়োল্লাস, অদম্য আত্মবিশ্বাস’ এ প্রতিপাদ্য নিয়ে আজ প্রথম বারের মতো ‘ক’ শ্রেণির জাতীয় দিবস হিসেবে উদযাপিত হবে শেখ রাসেল দিবস ২০২১। জাতীয়ভাবে দেশব্যাপী, বিদেশস্থ বাংলাদেশ দূতাবাস সমূহে যথাযথ মর্যাদায় দিবসটি পালনে নানান কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। খুলনায়ও অনুরূপ কর্মসূচির মধ্য দিয়ে দিবসটি পালনের আয়োজন করা হয়েছে।

এ উপলক্ষ্যে সকালে খুলনা জেলা প্রশাসকের সম্মেলনকক্ষে আলোচনা সভা, কেক কাটা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক। 

অনুষ্ঠানের শুরুতে অতিথিরা শিশুদের সাথে নিয়ে শেখ রাসেলের জন্মদিন উপলক্ষ্যে কেক কাটেন। অনুষ্ঠান শেষে দিবসটি উপলক্ষ্যে আয়োজিত বিভিন্ন প্রতিযোগিতার বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়। এর আগে সকালে খুলনা সার্কিট হাউজ প্রাঙ্গণে জেলা ও মহানগর মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, কেসিসি’র মেয়র, বিভাগীয় প্রশাসন, পুলিশ কমিশনার, জেলা প্রশাসন, মহানগর আওয়ামী লীগ, বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি দপ্তর ও সামাজিক-সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠান শেখ রাসেলের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে সিটি মেয়র বলেন, শেখ রাসেলের আত্মত্যাগ যেন সকল শিশুর যোগ্য মানুষ হিসেবে গড়ে ওঠার প্রেরণা। বেঁচে থাকলে শেখ রাসেল একজন সফল নেতা হতে পারতেন। পারিবারিক ঐতিহ্যের যোগ্য উত্তরসূরি হয়ে উঠতেন। কিন্তু ঘাতকের নির্মমতার শিকার হতে হয়েছে নিষ্পাপ শিশু রাসেলকে। শিশুদের আত্মশক্তিতে বলীয়ান হয়ে সাহসিকতার সাথে এগিয়ে যাওয়ার অনুপ্রেরণায় শিশু রাসেলের জন্মদিনকে সরকার জাতীয় দিবস হিসেবে ঘোষণা করেছে।

খুলনার জেলা প্রশাসক মোঃ মনিরুজ্জামান তালুকদারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত জানান অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোঃ ইউসুপ আলী। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন খুলনা জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ হারুনুর রশীদ, সংবিধান প্রণয়ন কমিটির সদস্য এ্যাডভোকেট এনায়েত আলী এবং অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ক্রাইম) এসএম ফজলুর রহমান। অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন সিভিল সার্জন ডাঃ নিয়াজ মোহাম্মদ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (উত্তর) সুশান্ত সরকার, বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ আলমগীর কবির,  জেলা শিক্ষা অফিসার খো. রুহুল আমীন ও জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার এএসএম সিরাজুদ্দোহা।

দিবসটি উপলক্ষ্যে খুলনা সিটি কর্পোরেশনের উদ্যোগে নগর ভবন চত্বরে শেখ রাসেলের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ, আলোচনা সভা, কেক কাটা, শিশুদের বিভিন্ন প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

scroll to top