দিঘলিয়ার উন্নয়নের রূপকার ড. মশিউর রহমান , তৈরি হচ্ছে ভৈরব ও আতাই নদীর উপর সেতু

Untitled-1-copy.jpg

নিজস্ব প্রতিনিধি, ডেইলি সুন্দরবনঃ স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে উন্নীত হওয়ায় বাংলাদেশের প্রতি স্পেন সরকারের ইতিবাচক মনোভাব তৈরীর ফলে তারা খুলনার দিঘলিয়া উপজেলার বারাকপুর ইউনিয়নের আড়ুয়া আতাই নদীর উপর সেতু নির্মাণের জন্য ৬০ মিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ করতে আগ্রহ প্রকাশ করেছে। ফান্ডিন রেডি আছে। দুই দেশের মধ্যে চুক্তি স্বাক্ষর এবং উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধি দলের যোগাযোগের মাধ্যমে বিনিয়োগের এ অর্থ ছাড় করাতে হবে।

স্পেনের এ দেশীয় কান্ট্রি রিপ্রেজেন্টেটিভ সোহেল খান জানান, ইতোপূর্বে আড়ুয়া আতাই নদীর উপর সেতু নির্মাণে স্পেনের বিনিয়োগের ব্যাপারে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অর্থনৈতিক উপদেষ্টা ড. মশিউর রহমানের সঙ্গে স্পেন প্রতিনিধি দলের বেশ কয়েকবার বৈঠক হয়েছে।

সর্বশেষ গত ১৩ নভেম্বর একই প্রতিনিধি দলের সঙ্গে খুলনা-৪ আসনের সংসদ সদস্য আব্দুস সালাম মূর্শেদীর বৈঠক হয়েছে।

দিঘলিয়া (রেলিগেট) আড়ুয়া-গাজীরহাট-তেরখাদা -সড়কের (জেড-৭০৪০) ১ম কিঃ মিঃ ভৈরব নদীর উপর সেতু নির্মাণ এবং ১২ তম কিঃ মিঃ আড়ুয়া আতাই নদীর উপর সেতু নির্মাণের গুরুত্বের কথা উল্লেখ করে ২০১৬ সালের ২১ আগষ্ট প্রধানমন্ত্রীর অর্থ উপদেষ্টা ড. মশিউর রহমান  সড়ক পরিবহণ ও সেতু মন্ত্রীকে ডিও লেটার প্রদান করেন। ডিও লেটার নং ১২৩। একই বছরের ২২ সেপ্টেম্বর পরিকল্পনা মন্ত্রীকেও তিনি ডিও লেটার প্রদান করেন।

উল্লেখ্য যে, দিঘলিয়ার উন্নয়নের রূপকার মাননীয় প্রধান মন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার অর্থনৈতিক উপদেষ্টা ডক্টর মশিউর রহমান একটি অবহেলিত ও একাধিক নদী দ্বারা ত্রিখন্ডিত জনপদের উন্নয়নের পূর্বশর্ত নদীতে সেতু নির্মাণের গুরুত্ব মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে বুঝিয়ে কার্যকরী ইতিবাচক পদক্ষেপ এর পূর্বে কেউ গ্রহন করতে সফলতা দেখাতে পারেনি। এর আগে ভৈরব সেতুর গুরুত্ব তুলে ধরে বিভিন্ন সংবাদ পত্রে সংবাদ প্রকাশ হলেও কেউ কোন পদক্ষেপ গ্রহন করেনি। কারো গুরুত্বর প্রতি আকুতি আসেনি। যদিও সংসদে বিভিন্ন সময় খুলনা ৪ আসন থেকে নির্বাচিত সাংসদগণ সংসদে ভৈরব সেতুর দাবী জানিয়েছেন। একমাত্র দিঘলিয়ার কৃতি সন্তান প্রধানমন্ত্রীর অর্থনৈতিক উপদেষ্টা ডক্টর মশিউর রহমানই দিঘলিয়ায় না চাইতে বৃষ্টি নামাতে সক্ষম হয়েছেন। এছাড়া নদী বেষ্টিত দিঘলিয়া উপজেলার উন্নত যাতায়াত ব্যবস্থার লক্ষ্যে আড়ুয়া ফেরিঘাটে আতাই নদীর উপর একটি সেতু নির্মাণের গুরুত্বারোপ করে সংসদের ১০ম অধিবেশনে খুলনা-৪ আসন সংসদ সদস্য আব্দুস সালাম মূর্শেদী সংসদে বক্তব্য উপস্থাপন করেন।

উপদেষ্টা এবং স্থানীয় সংসদ সদস্যদের দাবীর প্রেক্ষিতে আড়ুয়া আতাই নদীর উপর সেতু নির্মাণের সম্ভাব্যতা যাচাইয়ের লক্ষ্যে চলতি বছরের ১৩ ফেব্রুয়ারি স্পেনের সেন্ট উনিয়ন এস এ কোম্পানির বিজনেস ডেভেলপমেন্ট ডাইরেক্টর, তাঁর এক সহযোগী এবং তাদের এদেশীয় কান্ট্রি রিপ্রেজেন্টেটিভ সোহেল খান সেতু এলাকা পরিদর্শন করেন।

তিন সদস্যের এ প্রতিনিধি দল প্রস্তাবিত আড়ুয়া আতাই নদীর উপর সেতু নির্মাণের প্রয়োজনীয়তা যাচাই বাচাইয়ের লক্ষ্যে পরিদর্শনে আসেন। তাঁরা নদীর উভয় পাড়ে সরজমিনে বিভিন্ন তথ্য এবং চিত্র গ্রহণ করেন। সরেজমিনে পরিদর্শনের পূর্বে তাঁরা প্রস্তাবিত আড়ুয়া ফেরিঘাটের জন্য তৈরী করা বিভিন্ন দপ্তর ও সংস্থার কাগজপত্র, নকশা, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের বিভিন্ন কাগজপত্র, প্রধানমন্ত্রীর অর্থনৈতিক উপদেষ্টার দপ্তরের বিভিন্ন কাগজপত্র, বিভিন্ন মন্ত্রনালয়ের পত্র, রোড ডিভিশন সংশ্লিষ্টদের পূর্বে এ বিষয়ে প্রস্তুত করা বিভিন্ন কাগজ পত্র দেখে তারা তখন সন্তোষ প্রকাশ করেছিলেন।

উল্লেখ্য, স্পেন সরকার ১৯৯৬ সালের শেষের দিকে সর্বপ্রথম বাংলাদেশে প্রায় ৮০ মিলিয়ন ডলার একটি প্রকল্পে বিনিয়োগ করে। তখন ইআরডি সচিব হিসেবে আমি অর্থগুলো ছাড় করেছিলাম বলে এ প্রতিবেদককে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অর্থনৈতিক উপদেষ্টা ড. মশিউর রহমান ।

এ সময় স্পেনের প্রতিনিধিদলের সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন খুলনা সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ আনিসুজ্জামান মাসুদ, উপ বিভাগীয় প্রকৌশলী মোঃ আনোয়ার পারভেজ সহ উক্ত দপ্তরের কর্মকর্তাবৃন্দ, প্রধানমন্ত্রীর অর্থনৈতিক উপদেষ্টা ড. মশিউর রহমানের ব্যক্তিগত কর্মকর্তা এম এ রিয়াজ কচি, মোঃ হাফিজুর রহমান ও স্থানীয় রাজনীতিক ও সামাজিক ব্যক্তিবর্গ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

scroll to top